মুম্বই, ১৬ জুলাই। সাম্প্রতিক নানা ইস্যুতে বাক্ স্বাধীনতা খর্ব হচ্ছে বলে অভি‌যোগ তুলেছেন রাহুল গান্ধী। এবার তাঁর কাছেই ইন্দু সরকারের পরিচালক মধুর ভান্ডারকরের প্রশ্ন, আমার বাক্ স্বাধীনতার কী হবে? মধুর ভান্ডারকরের ছবি ইন্দু সরকার জরুরি অবস্থার প্রেক্ষাপটে নির্মিত। ছবিতে ইন্দিরা ও সঞ্জয় গান্ধীর চরিত্র রয়েছে। (আরও পড়ুন- অর্মত্য সেনের বাক্ স্বাধীনতায় সরব মমতার ‘ভণ্ডামি’ ফাঁস করলেন কুণাল)

এদিন মহারাষ্ট্রের নাগপুরে ছবি কলাকুশলী ও পরিচালককে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক ডাকা হয়েছিল। ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে কংগ্রেস কর্মীরা স্লোগান দিতে শুরু করেন। তার জেরে ভেস্তে ‌যায় সাংবাদিক বৈঠক। ট্যুইটারে ভিডিও পোস্ট করে ভান্ডারকর লিখেছেন,”ডিয়ার রাহুল গান্ধী পুণের পর নাগপুরেও সাংবাদিক বৈঠক করতে দেওয়া হল না। আপনি কি এই ধরণের গুন্ডামি সমর্থন করেন? আমার বাক্ স্বাধীনতার কী হবে?” (আরও পড়ুন- ধুতি পরায় পরিচালক আশিস অভিকুন্তককে ঢুকতে দিল কলকাতার শপিং মল)

 

পরে ভান্ডারসর প্রশ্ন করেন, “আমি কি ছবি বানাতে পারব না?” তিনি আরও বলেন, “কংগ্রেসের উচিত বিক্ষোভকারীদের থামানো। এই ধরণের প্রতিবাদ বন্ধ করা দরকার। তিন মিনিটের ট্রেলার দেখেই এভাবে প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। ছবির ৭০ শতাংশই কল্পনামাত্র। তাঁর আরও দাবি, আমাকে ও অভিনেতাদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বেঙ্গালুরু ও আমদাবাদে সাংবাদিক বৈঠক বাতিল করেছি। একটা ছবিকে এতটা ভয় পাচ্ছেন?”

ভান্ডারকরের ছবিতে ইন্দিরা গান্ধী ও সঞ্জয় গান্ধীর চরিত্র রয়েছে। কীভাবে দেশজুড়ে জরুরি অবস্থার সময়ে মানুষের উপরে অত্যাচার করা হয়েছিল, সেনিয়েই এই ছবির কাহিনি।
ছবির ট্রেলার দেখেই বোঝা ‌যাচ্ছে, ইন্দিরা ও সঞ্জয় গান্ধীর চরিত্রে গ্রে শেড রয়েছে। আর এতেই আপত্তি কংগ্রেস কর্মীদের।