মুম্বই, ২১ মার্চ। মহিলারাই নাকি সবথেকে ভালো গোয়েন্দা। চর বৃত্তিতে তাঁদের জুড়ি মেলা ভার। সম্প্রতি এমনটাই দাবি করেছেন বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমার।  মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ থেকে ইজারায়েলের মোসাড,  সবাই এই একটা কথা মানে  বলে জানিয়েছেন অক্ষয়। (আরও পড়ুন: ‍’হিন্দু ভাবাবেগে আঘাত‍’, অভিনেতা কমল হাসানের বিরুদ্ধে অভি‌যোগ দায়ের  হিন্দু সংগঠনের)

তবে হঠাৎ অক্ষয় কেন মহিলাদের গোয়েন্দাগিরি নিয়ে মন্তব্য করতে গেলেন? আসলে  ‘নাম শাবানা’ ফিল্ম প্রসঙ্গে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে এই কথা বলেছেন ‘খিলাড়ি’৷  এবিষয়ে কিছুটা মজা করে আক্কি বলেন তাঁর কথায় বিশ্বাস না হলে, এই বিষয়টি বিশ্বের যে কোনও স্বামীর কাছে জানতে চাওয়া হলে সবাই একই কথা বলবেন বলে মন্তব্য করেন অক্ষয় ৷  প্রসঙ্গত, সম্প্রতি অক্ষয়ের সিনেমা ‍’জলি এলএল বি ২‍’-তেও দেখানো হয়েছে বাইরে ‌যতই চাতুরি করুন না কেন একজন স্বামী কিভাবে স্ত্রীর কাছে মাথা নত করে নিচ্ছেন।

akshay kumar, Taapse Pannu

মহিলাদের ষষ্ঠ ইন্দ্রিয়ের প্রশংসা করে আক্কির বলেন, প্রত্যেক মেয়ের মধ্যে যে ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় থাকে তাই তাঁদের সবচেয়ে বড় সম্পদ ৷ ছেলেরা প্রযুক্তিগতভাবে এগিয়ে থাকতেই পারেন, কিন্তু মহিলার মধ্যে ঈশ্বরপ্রদত্ত এমন এক অ্যান্টেনা রয়েছে, যার সৌজন্যে তাঁরা বিপদ আগে থেকেই আঁচ করতে পারেন৷ (আরও পড়ুন: জন্মদিনে রানি, দেখুন বং বিউটির অদেখা অন্তঃপুর)

‘নাম শাবানা’ ছবি নিয়েও এদিন নিজের মনোভাব ব্যক্ত করেন আক্কি৷ ‘বেবি’ থেকে শাবানার চরিত্রকে বেছে নেওয়ার একটাই কারণ৷ শাবানা এমন এক চরিত্র যাকে গোয়েন্দা হিসেবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে৷ এতদিন ভারতীয় সিনেমায় শুধু গোয়েন্দা কিংবা চরদের কীর্তিকলাপ দেখানো হয়েছে৷ কিন্তু এই প্রথম এক সাধারণ মানুষের চর হয়ে ওঠার কাহিনির সাক্ষী থাকবেন দর্শকরা, এমনটাই দাবি অক্ষয়ের৷ (আরও পড়ুন: ছবি তুলতে ভালোবাসেন? এই ওয়েবসাইটগুলো থেকে কামাতে পারেন লক্ষ টাকা)

এই ছবিতে তাপসি পান্নুর বিপরীতে  ৪৯ বছরের এই  অভিনেতাকে ক্যমিও চরিত্রে দেখা ‌য়াবে। এই সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন মহিলারাই।  আর অক্ষয়কে দেখা ‌যাবে অজয় সিং রাজপুতের চরিত্রে।