নয়া দিল্লি, ২০ মে : তিন তালাকের মতো প্রথা মুসলিম সমাজে বন্ধ না হলে সরকারই তার ব্যবস্থা করবে। সাফ জানিয়ে দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বেঙ্কাইয়া নায়ডু।(আরও পড়ুন : ইভিএম হ্যাক করে দেখান, মায়াবতী-কেজরিওয়ালদের কা‌র্যত চ্যালেঞ্জ নাসিম জাইদির)

তিন তালাক প্রথার প্রাসঙ্গিতার বিষয়টি এখন সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চের বিচারাধীন। কেন্দ্র ইতিমধ্যেই আদালতে জানিয়ে দিয়েছে, আদালত তিন তালাক নিষিদ্ধ করে দিলে মুসলিম বিয়ে ও বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে নতুন আইন আনবে সরকার। এরপর প্রকাশ্যে সেই একই কথা বলে তিন তালাক নিয়ে মোদী সরকারের দৃড় অবস্থানের কথা ফের জাহির করল কেন্দ্র।

শনিবার অমরাবতীতে এক সভায় বেঙ্কাইয়া নায়ডু বলেন, তিন তালাক নিয়ে মুসলিম সমাজকেই উদ্যোগী হতে হবে। আর তা করতে না পারলে সরকারকেই এনিয়ে আইন এনে তিন তালাক নিষিদ্ধ করতে হবে। এটা কারও ব্যক্তিগত আইনে হস্তক্ষেপের বিষয় নয়। বরং দেশের মুসলিম মহিলদের প্রতি সামাজিক ন্যায়ের বিষয়। আইনের চোখে দেশের সব মহিলার সমান অধিকার থাকা উচিত।(আরও পড়ুন :কুলভূষণকে কাসভের থেকেও বড় জঙ্গির তকমা মুশারফের)

বেঙ্কাইয়া আরও বলেন, হিন্দু সমাজে বাল্যবিবাহ প্রথা চালু ছিল। এনিয়ে সমাজের মধ্যে থেকেই কথা ওঠে। পরে সংসদে আইন পাশ করে তা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সতীদাহের মতো প্রথাও নিষিদ্ধ হয়েছে। সমাজের মধ্যে এই ধরনের প্রথা চালু থাকা উচিত নয়।