২৮ নভেম্বর : ভারতে অবৈধভাবে বসবাসকারী বাংলাদেশি মুসলিম নাগরিকদের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হল। এর প্রথম ধাপ হিসেবে অসমের বিভিন্ন জেলা থেকে তাঁদের বাংলাদেশে পাঠানো হচ্ছে। রাজ্যে অবৈধভাবে ঢুকে পড়া বাংলাদেশিদের সে দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে সম্প্রতি জানিয়েছেন অসমের অর্থমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে অসমে বিজেপির একটি ইস্যুই ছিল অবৈধ বাংলাদেশি বিতাড়ন।

অসমের অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্যে বাংলাদেশি মুসলিমদের সংখ্যা ক্রমশই বেড়ে ‌যাচ্ছে। লক্ষ্যনীয়ভাবে কমতে শুরু করেছে হিন্দুদের সংখ্যা। উল্লেখ্য, ভারতের ‌যেসব রাজ্যে অনুপ্রেবেশের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি তার মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে অসম। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলায় জনবিন্যাস বদল হয়ে গেছে বলেও অভি‌যোগ। অসমে ‌যারা অবৈধভাবে বাস করছেন তারা ডি-ভোটার বলে চিহ্নিত। তরুণ গগৈয়ের আমল থেকেই এনিয়ে অসমে বিস্তর জলঘোলা হচ্ছে। বিশেষকরে ভোট এলে এনিয়ে তোলপাড় হয় রাজ্যে।(আরও দেখুন : ৩০ বছর পর বাংলাদেশে আর কোনও হিন্দু থাকবে না, বলছে তথ্য)

ভারতের আর কোনও রাজ্য থেকে বাংলাদেশিদের ফেরত পাঠানো হবে কিনা তা আপাতত স্পষ্ট নয়। তবে এই মুহূর্তে ২ কোটি বাংলাদেশি অবৈধভাবে ভারতে বসবাস করছেন। সম্প্রতি একটি তথ্যে জানা যায়,  প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৬৩২ জন বাংলাদেশি দেশ ছাড়ছেন l  এদের অধিকাংশই সংখ্যালঘু। পরিস্থিতি যদি এরকম চলে,  তা হলে আগামী ৩০ বছর পর বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দুদের কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে না l  এমনই দাবি করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর আবদুল বরকত l

ছবি সৌজন্য -ডিফেন্স নিউজ