নয়া দিল্লি, ১৭ জুলাই:  ভারত-চিন সংঘাতের মধ্যেই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা।

ফারুক আবদুল্লা এদিন বলেন, চিনের মুখোমুখি হওয়ার সাহসের অভাব রয়েছে ভারতের। লাদাখে চিন ভারতের অংশ আকসাই চিন দখল করে রেখেছে। আমরা এনিয়ে চিৎকার করি কিন্তু আমাদের ক্ষমতা নেই ওই অংশ চিনের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার।

(আরও পড়ুন: রাজ্যের সরকারি হাসপাতালের আউটডোরে এবার রোগী দেখবেন জ্যোতিষীরাও)


উল্লেখ্য, ডোকলাম নিয়ে গত কালই ভারতকে হুমকি দিয়েছে চিন। তাদের বক্তব্য, ডোকলাম নিয়ে কোনও সমঝোতা নয়। নিঃশর্তে ভারতকে সেখান থেকে সেনা সরাতে হবে। তা না হলে ভারতকে এর জন্য মূল্য দিতে হবে। এরকম এক অবস্থায় আবদুল্লা আজ বলেন, চিনের সঙ্গে আমাদের কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও বাড়াতে হবে। চিন পাকিস্তানের বন্ধু। আমরা ‌যদি ওদের সঙ্গে বন্ধুত্ব তৈরির চেষ্টা করতাম তাহলে ওরা পাকিস্তানের সঙ্গে গলাগলি করতো না।

সম্প্রতি জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি দাবি করেছেন, রাজ্যে অশান্তির পেছনে চিনের মদত রয়েছে। এনিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়ে গেছে। মুখ খুলেছেন ওমর আবদুল্লাও। এরকম এক অবস্থা চিনের সঙ্গে বন্ধুত্ব বাড়ানোর কথা বললেন ফারুক।

(আরও পড়ুন: চক্রান্তের শিকার, ফের গ্রেফতার হতে পারেন কুণাল, ফেসবুকে নিজেই ফাঁস করলেন আসল রহস্য )

ন্যাশনাল কন্ফারেন্স প্রধান এদিন বলেন, চিন চাইছে কারোকোরাম বাইপাস তৈরি করে সিল্ক রুট খুলতে। সেটা তাদের দখলে থাকা অঞ্চলৱ দিয়েই ‌যাচ্ছে। এনিয়ে প্রতিবাদ করে লাভ নেই। অন্যদিকে, দলাই লামাকে আমরা রাখব কিনা তা আমাদের ব্যাপার।