নয়া দিল্লি, ১৭ জুলাই:  রাজৌরি সেক্টরে পাক রেঞ্জার্সদের গোলাগুলির বিরাম নেই। নিয়ন্ত্রই রেখা লক্ষ্য করে পাক রেঞ্জার্সদের গুলিতে সোমবার নিহত হলেন এক সেনা জওয়ান ও এক ৯ বছরের কিশোরী।

(আরও পড়ুন : কাশ্মীরে জঙ্গিদের দাফনে মৃতদেহ মুড়ে ফেলা হচ্ছে আইএসের পতাকায়, আশঙ্কায় মেহবুবা সরকার)

সোমবার পাক গোলাগুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর নায়েক মুদাসসার আহমেদ। ত্রালের রাজৌরি সেক্টরে তিনি কর্মরত ছিলেন। শনিবার থেকেই রাজৌরিতে অবিরাম গুলি চালাচ্ছে পাকিস্তান। এনিয়ে সোমবার দুদেশের ডিজিএমও প‌র্যায়ে কথাও হয়। তার পরেও এই মৃত্যু।


ডিজিএমও প‌র্যায়ের বৈঠকে আজ পাকিস্তানের পক্ষ থেকে অভি‌যোগ করা হয় পুঞ্চে ভারতীয় সেনার গুলিতে বেশ কয়েকজন পাক সেনার মৃত্যু হয়ছে। ভারতীয় সেনার অভি‌যোগ, ‌যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গুলি চালানো শুরু করে পাকিস্তানই। আর পাক অধিকৃত কাশ্মীর থেকে ক্রমাগত অনুপ্রবেশ ঠেকাতেই গুলি চালাতে হচ্ছে ভারতকে।

(আরও পড়ুন : নালিশ শুনছে না পুলিশ, তৃণমূলী গুণ্ডাদের দাপটে অতিষ্ঠ মতুয়া সম্প্রদায়ের উদ্বাস্তু মানুষগুলো)


উল্লেখ্য, শনিবার পাক রেঞ্জার্সদের গুলিতে রাজৌরিতেই নিহত হন লান্স নায়েক মহম্মদ নাসির। এদিন বালাকোট, নাইকা, মাঞ্জকোট সহ নিয়ন্ত্রণরেখার একাধিক এলাকা পাক গোলাগুলিতে কোঁপে ওঠে। এলাকা ছেড়ে পালাতে শুরু করে সাধারণ মানুষ। সোমবার বালাকোটে পাক গুলিতে নিহত হয়েছে ৯ বছরের এক কিশোরী।