নয়া দিল্লি, ১৯ জুন : এনডিএ-র রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী রামনাথ কোবিন্দে আপত্তি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সিপিএমের পক্ষ থেকেও এর বিরোধিতা করা হয়েছে। অন্যদিকে, কংগ্রেসেরও নাপসন্দ কোবিন্দ। তারা চাইছে মীরা কুমারকে।(অারও পড়ুন : লকহিড মার্টিনের সঙ্গে চুক্তি সাক্ষর টাটার, ভারতেই তৈরি হবে ভয়ঙ্কর এই ‌যুদ্ধবিমান)

সোমবার অমিত শাহ এনডিএ-র রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হিসেবে রামনাথ কোবিন্দের নাম ঘোষণা করে দেওয়ার পরই বিরোধী শিবির থেকে প্রবল আপত্তি তোলা হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেদারল্যান্ডস ‌যাওয়ার পথে মন্তব্য করেছেন, রামনাথ রাষ্ট্রপতি পদে অ‌যোগ্য এমন কথা বলছি না। তবে উনি বিজেপির দলিত মোর্চার নেতা বলেই ওঁকে প্রার্থী করা হয়েছে। দেশে অনেক বড়মাপের দলিত নেতা রয়েছেন। এর পরিবার্তে আডবানি বা সুষমা স্বরাজের মতো কাউকে প্রার্থী করা ‌যেত।


এদিকে, এনডিএর রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী নিয়ে আপত্তি করেছে সিপিএমও। দলের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেছেন, রামনাথজি আরএসএসের দলিত শাখার গুরুত্বপূর্ণ নেতা ছিলেন। এই ধরনের কাউকে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করার অর্থ রাজনৈতির সংঘাত শুরু করা। প্রসঙ্গত, আগামী ২২ জুন বিরোধীদের বৈঠক বসছে। সেখানেই রামনাথের বিপক্ষে কোনও প্রার্থী বিরোধীরা খাড়া করেন কিনা দেখার বিষয়।(আরও পড়ুন : সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন আইনজীবী কোবিন্দের সংবিধান জ্ঞান নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন মমতা)


অন্যদিকে, কংগ্রেসও এনডিএর প্রার্থী নিয়ে আপত্তি তুলেছে। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে বিজেপি একতরফা দলের এক পুরনো নেতাকে প্রার্থী করেছে। রাজনৈতিক মহলের খবর তারা মীরা কুমারকে প্রার্থী করতে পারে। রামনাথে আপত্তি রয়েছে শিবসেনারও। দলের প্রধান উদ্ধব ঠাকরে মন্তব্য করেছেন, কেউ ‌যদি কোনও দলিতকে রাষ্ট্রপিতি করে ভোটব্যাঙ্ক ভরাতে চায় তাহলে আমরা তাদের সঙ্গে নেই। কিন্তু প্রশ্ন থেকেই ‌যাচ্ছে বিরোধীদের রামনাথ কোবিন্দকে ঠেকানোর ক্ষমতা রয়েছে কিনা। কারণ ইতিমধ্যেই সপা সহ কয়েকটি দল এনডিএর প্রার্থীকে সমর্থন করার কথা জানিয়েছে।