লখনউ, ২৯ নভেম্বর। নোট বাতিলের প্রতিবাদে দেশজুড়ে প্রচারের প্রথম পর্বে লখনউয়ে সভা করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেখান থেকে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ‘নোটবন্দি’‍র প্রতিবাদে ‘ভোটবন্দি’‍র ডাক দিলেন তিনি।

আগামী বছরের শুরুতেই বিধানসভা ভোট উত্তর প্রদেশে। তার আগে নোট বাতিল ইস্যু নিয়ে সেখানে জল মাপার কাজে নামলেন তিনি। পশ্চিমবঙ্গ থেকে বেরিয়ে অন্য রাজ্যে তৃণমূলকে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা ২০১১-র পর থেকেই চালিয়ে ‌যাচ্ছেন মমতা। এবার তাঁর লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশ।

মঙ্গলবার লখনউয়ে দলীয় মঞ্চ থেকে ৫০০ ও ১,০০০ টাকার নোট বাতিলের প্রতিবাদে সরব হন মমতা। বলেন, ‘বিদেশে ‌যাঁরা পাহাড়প্রমাণ কালোটাকা জমিয়ে রেখেছেন তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না সরকার। বদলে সাধারণ মানুষের হকের টাকা কেড়ে নিচ্ছে।’‍ এর পরই, ‘নোটবন্দি’‍র প্রতিবাদে ‘ভোটবন্দি’‍র ডাক দেন তিনি।

এদিন একবার ফের মোদীর সিদ্ধান্তকে মহম্মদ বিন তুঘলকের সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। উপস্থিত জনতাকে, আসন্ন নির্বাচনে বিজেপিকে উচিত জবাব দেওয়ার ডাক দেন তিনি।

লখনউয়ে দাঁড়িয়ে মমতা বলেন, ‘উত্তর প্রদেশের ৩৯,০০০ গ্রামে ব্যাঙ্কের শাখা নেই। সেই সব জায়গার মানুষরা কী ভাবে নোট বাতিলের ধাক্কা সামলাবেন?’‍ এদিন মমতার মঞ্চে হাজির ছিলেন সেরাজ্যের দুই মন্ত্রী পবন পান্ডে ও অরবিন্দ কুমার। মমতার সঙ্গে দেখা করেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ ‌যাদব।

এর পর বিহারের রাজধানী পটনায় সভা করার কথা তাঁর।