নয়াদিল্লি, ১ ডিসেম্বর : কাশ্মীরের লড়াই হবে অনেক লম্বা। অবসর নেওয়ার দিনে এভাবেই হুঁশিয়ারি দিলেন নর্দান কমান্ডের বিদায়ী প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডি এস হুড়া। বৃহস্পতিবারই ছিল তাঁর কা‌র্যকালের শেষ দিন। এদিন তিনি বলেন, কাশ্মীর সমস্যা সমাধানের জন্য দীর্ঘমেয়াদী পদক্ষেপের প্রয়োজন।(আরও পড়ুন : কাশ্মীরে সিআরপিএফের কনভয়ে ভয়ঙ্কর জঙ্গি হামলা, নিহত ৫ জওয়ান)

------998989898Hooda

গতকালই নাগরোটার পাকিস্তানের গুলিতে নিহত হয়েছেন ৭ জওয়ান। হুড়া বুধবার বলেন, নিয়ন্ত্রণরেখায় পাকিস্তানের গোলাগুলি এক্ষুনি থামবে না। তার পর ফের এদিন একথা বললেন তিনি। হুড়া বলেন, গত দুমাসের পরিস্থিতিতে সেনাবাহিনীর সাফল্যের কথা মাথায় রাখলে হবে না। বরং আরও বড় করে বিষয়টি দেখতে হবে। আমরা নাগরোটা হামলা রুখে দিতে পারতাম। কিন্তু কিছু ধাক্কা তো সহ্য করতেই হবে। থামলে চলবে না। আমাদের এগিয়ে ‌যেতে হবে। কেন্দ্র সরকার সূত্রে জানা গেছে, কাশ্মীরে গজিয়ে ওঠা জঙ্গিরা শীঘ্রই শেষ হয়ে ‌যাবে। কিন্তু সমস্যা সীমান্তপার জঙ্গিদের নিয়ে। ফলে হুড়ার ওই মন্তব্য ‌যথেষ্টই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।(আরও পড়ুন : বারামুলায় সেনা ক্যাম্পে জঙ্গি হামলা, খতম ২ জঙ্গি, আহত ৩ জওয়ান)

এ বছর জম্মু ও কাশ্মীরে ৬০ জন সেনা জওয়ান মারা গেছেন বলেন জানান হুড়া। কিন্তু জঙ্গিদের মোকাবিলায় সাধারণ মানুষের ক্ষতি ‌যাতে কম হয় তার দিকে সব সময় নজর রাখতে হবে। নারগোটায় হামলায় গোয়েন্দাদের আগাম খবর থাকলেও ঠেকানো ‌যায়নি। এই ধরনের কোনও অভি‌যোগ উড়িয়ে দেন হুড়া।