লখনঔ, ১৯ জুন : গোহত্যা রোধে আরও আরও কড়া আইন আনছে ‌যোগি সরকার। এমন আইন ‌যে এতদিন ‌যারা গোহত্যার শাস্তি নিয়ে কোনও ভয়ডর পেত না, এবার তাদের বুক কাঁপবে। এমনটাই হুঁশিয়ারি দিলেন উত্তর প্রদেশের উপ মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌ‌র্য।(আরও পড়ুন : সিমলায় হারের পর প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত করে পোস্ট করল কংগ্রেস )

রাজ্যে বিজেপি প্রধান ও উপ মুখ্যমন্ত্রী মৌ‌র্য তাঁর সরকারের গোহত্যা আইন নিয়ে অবস্থান স্পষ্ট করেন। দৈনিক দ্যা হিন্দু-কে দেওয়া এক সক্ষাতকারে তিনি বলেন, এ মাসের গোড়ার দিকে ইউপি সরকার দেশে গোহত্যাকারীদের বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা আইন ও গ্যাংস্টার আইনে অভি‌যোগ আনার প্রস্তাব করেছে।

মৌ‌র্য বলেন গোহত্যাকারী বা গরু পাচারকারীর বিরুদ্ধে ‌যদি জাতীয় নিরাপত্তা আইনে অভি‌যোগ আনা ‌যায় তা হলে ‌যারা ওই কাজ করছে তাদের বুক কাঁপবে। ওরা বুঝতে পারবে ‌যদি ওই ধরনের কাজ করা হয় তাহলে কী শাস্তি হতে পারে। এই জন্য ওই কড়া আইনের কথা ভাবছে সরকার।(আরও পড়ুন:  পাহাড়ে অশান্তি বরদাস্ত করব না, নেদারল্যান্ডস ‌যাওয়ার আগে কড়া সুর মমতার)

জাতীয় নিরাপত্তা আইন অধিকাংশ ক্ষেত্রে জাঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা হয়। এত কড়া আইন আনা হলে তা অপব্যবহারের সু‌যোগ থেকেই ‌যায়। এনিয়ে মৌ‌র্য বলেন, না অপব্যবহারের সু‌যোগ নেই। কেউ ‌যদি গোহত্যা করে ও তার প্রমাণ পাওয়া ‌যায় তাহলেই তারে বিরুদ্ধে ওই আইন প্রয়োগ করা হবে। এটা তো প্রথম দিনেই আনা হচ্ছে না। আমার বিশ্বাস উত্তর প্রদেশের মতো রাজ্যে কেউ আর গরুর গলার কাছে আর ছুরি নিয়ে ‌যেতে সাহস করবে না।