নয়াদিল্লি, ২ ডিসেম্বর : মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আক্রমণের পালটা দিল জেডিইউ।

নেটা বাতিল ইস্যুতে কেন্দ্র সরকার বিরোধী আন্দোলনে সমর্থন না করায় নীতিশ কুমারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তৃণমূল নেত্রী। সেই আক্রমণের বিরুদ্ধে সরব হলেন জেডিইউ নেতা হরিবংশ। জেডিইউ সাংসদ বলেন, পশ্চিমবঙ্গ দুর্নীতিগ্রস্থদের আখড়া হয়ে গেছে। এরাই হাজার হাজর কোটি টাকার চিটফান্ড কেলেঙ্কারি করে গরীব মানুষের টাকা লুট করেছে। শুধুমাত্র পশ্চিমবঙ্গেই নয়, বিহার, ঝাড়খণ্ড, অসম, ওড়িশা ও ত্রিপুরাতেও মানুষের টাকা নয়ছয় করেছে। দুর্ভাগ্যের বিষয় হল তৃণমূল নেতারা এর সঙ্গে জড়িত।(আরও পড়ুন : লালুর ডিগবাজিতে চিৎপটাং মমতা)

উল্লেখ্য, বুধবার পটনায় নোট বাতিলের প্রতিবাদে সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাম না করে নীতিশ কুমারের বিরুদ্ধে বিশ্বাসঘাতকতার অভি‌যোগ আনেন। সেই আক্রমণের পালটা হিসেবে নীতিশ কিছু না বললেও সরব হয়েছেন জেডিইউ সাংসদ হরিবংশ। এতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নীতিশ কুমারের সম্পর্ক আরও তলানিতে চলে গেল বলে মনে করা হচ্ছে।(আরও পড়ুন : নোট বাতিল নিয়ে মতামত, নরেন্দ্র মোদী অ্যাপ-এ জানান, জনসাধারণকে আবেদন প্রধানমন্ত্রীর)

নোট বাতিল ইস্যুতে এমনিতেই নরেন্দ্র মোদীর পাশে ছিলেন নীতিশ কুমার। এনিয়ে বিহারের জেডিইউ-আরজেডি জোটের বাঁধন অনেকটাই আলগা হয়েছে। লখনউ থেকে বিহারে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লালুপ্রসাদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। তার পর তিনি নীতিশের সঙ্গেও ‌যোগা‌যোগ করেন বলে সংবাদ মাধ্যমের খবর। কিন্তু পটনায় মমতার সভায় থাকতে অস্বীকার করেন নীতিশ। দলের নেতা কর্মীদেরও সেখানে পাঠানোর ব্যাপারে না করে দেন। এতেই চটে‌ যান মমতা।