নয়াদিল্লি, ১ ডিসেম্বর : দেশের অর্থনীতি থেকে কালোটাকার দূর করতে পাঁচশো ও হাজার টাকার নোট বাতিল করে হইচই ফেলে দিয়েছেন মোদী। দেশে এনিয়ে প্রবল ক্ষুব্ধ বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দল। এদিকে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে। ওই রিপোর্টে দেখা ‌যাচ্ছে অজানা উৎস থেকে আয়ের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বিজেপি।(আরও পড়ুন : সুইস ব্যাঙ্কে রয়েছে কাদের কালোটাকা, সব হিসেব আসছে ভারতে)

সম্প্রতি অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রাটিক রিফর্মস নামে একটি সংস্থা এরকমই একটি তথ্য প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা ‌যাচ্ছে ২০১৩-১৫ সালে বিজেপির দলীয় তহবিলে ছিল ৯৭৭ কোটি টাকা। ওই টাকার উৎস কী, তা জানানো হয়নি।

জনপ্রতিনিত্ব আইন ১৯৫১ অনু‌যায়ী ২০ হাজার টাকার ওপরে কোনও দল কোনও অনুদান নিলে তা নির্বাচন কমিশনকে জানাতে হবে। কোনও ব্যাক্তি বা কোনও কোম্পানি ওই অনুদান দিল তার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে কমিশনকে। কুড়ি হাজার টাকার কম অনুদান নিলে তা কমিশনকে জানানোর কোনও প্রয়োজন নেই।(আরও পড়ুন : কালোটাকা সরিয়ে ফেলা হচ্ছে জনধন অ্যাকাউন্টে, কী হুঁশিয়ারি দিলেন মোদী?)

অ্যসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রাটিক রিফর্মসের ওই রিপোর্টে দেখা ‌যাচ্ছে ২০১৩-১৫ সালের মধ্যে বিজেপির হাতে অজানা উৎস থেকে ‌যে পরিমাণ টাকা ছিল তার পরিমান ৯৭৭.২৫ কোটি টাকা। এর পরেই রয়েছে কংগ্রেস। জাতীয় কংগ্রেসের তহবিলে রয়েছে ৯৬৯ কোটি টাকা। বহুজন সমাজ পার্টির তহবিলে ছিল ১৪১ কোটি টাকা, সিপিএমের হাতে ছিল ১২০ কোটি টাকা। ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের তহবিল আসে অজানা উৎস থেকে। প্রায় ৬০ শতাংশ টাকা আগে ওই ধরনের উৎস থেকে।