মুম্বই, ৬ জানুয়ারি। মহেন্দ্র সিংহ ধোনি একদিন ও T20 দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার পর তাঁর অধিনায় হওয়াটা ছিল শুধু সময়ের অপেক্ষা। শুক্রবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দল নির্বাচনের পর সেই অনুষ্ঠানিকতা সেরে ফেলল BCCI. টেস্টের পাশাপাশি ভারতীয় একদিন ও T20 দলের অধিনায়ক ঘোষণা করা হল বিরাট কোহলিকে। আর ধোনির হাত থেকে ব্যাটন কোহলির হাতে ‌যেতেই দলে ফিরলেন ‌যুবরাজ সিংহ।


এদিনের নির্বাচনী বৈঠক নিয়ে টানটান উত্তেজনা ছিল ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে। আনুষ্ঠানিক অধিনায়ক ঘোষণার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন কোহলির ভক্তরাও। তবে সব থেকে বড় চমক হিসাবে উঠে এলেন ‌যুবরাজ। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩টি একদিনের ম্যাচ ও ৩টি T20 খেলবে ভারত।

একদিনের দলে জায়গা পেয়েছেন, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (উইকেট রক্ষক), কেএল রাহুল, শিখর ধাওয়ান, মণীষ পাণ্ডে, কেদার ‌যাদব, ‌যুবরাজ সিংহ, অজিঙ্ক রাহানে, হার্দিক পাণ্ডিয়া, আর অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, অমিত মিশ্র, জসপ্রীত বুমরাহ, উমেশ ‌যাদব, ভুবনেশ্বর কুমার।

 

ভারতের T20 দল,

বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (উইকেট রক্ষক), মনদীপ সিংহ, কেএল রাহুল, ‌যুবরাজ সিংহ, সুরেশ রায়না, ঋষভ পন্থ, হার্দিক পাণ্ডিয়া, আর অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা, ‌যুঝবেন্দ্র চহল, জসপ্রীত বুমরাহ, আশিস নেহেরা।

এদিনের দল নির্বাতনে ‌যুবরাজ ও নেহেরার ‌যথাক্রমে একদিন ও T20 দলে প্রত্যাবর্তন বেশ তাৎপ‌র্যপূর্ণ। ‌যুবিকে দলের বাইরে রাখায় ধোনির হাত রয়েছে বলে বার বার প্রকাশ্যে অভি‌যোগ জানিয়েছিলেন তাঁর বাবা ‌যোগরাজ সিংহ। ক্রিকেট রাজনীতির খবর ‌যাঁরা রাখেন তাঁদের মতে, শুধু ‌যুবরাজ নন, বীরেন্দ্র সহবাগ-সহ একাধিক সমসাময়িক ক্রিকেটারকে দলের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন ধোনি। কিন্তু তাঁর নেতৃত্বে ভারত লাগাতার জিততে থাকায় এসব নিয়ে প্রশ্ন ওঠেনি কোনওদিন।