লন্ডন, ১৮ জুন। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ফাইনালে ভারত-পাকিস্তান। গোটা দেশের নজর ছিল সেই ম্যাচের দিকে। কিন্তু হতাশ করেছেন বিরাট কোহলিরা। ১৮০ রানে লজ্জার হার জুটেছে। ফাইনালে লড়াই ছুড়ে দিতে পারেননি ভারতের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানরা। অন্যদিকে লন্ডনের অলিম্পিক পার্কে বিশ্ব হকি লিগের সেমিফাইনালে পাকিস্তানকে ৭-১ গোলে হারালেন সর্দাররা। ভারতের মান রেখেছেন তাঁরাই। পাকিস্তানকে হারানোর পর ফাইনালে পৌঁছল ভারতের পুরুষ হকি দল। (আরও পড়ুন- রোজ রোজ রান তাড়া করে জেতাবেন বিরাট? পেস বোলিংয়ের সামনে পড়তেই হাওয়া বেরিয়ে গেল)

তবে শুধু ভারতের মান বাঁচানোই নয়, পাকিস্তানকে কড়া বার্তাও দিয়েছেন সর্দাররা। তাঁরা এদিন কালো আর্ম ব্যান্ড বেঁধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সীমান্তে জঙ্গি অনুপ্রবেশ করিয়ে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সঙ্গে ছায়া‌যুদ্ধ চালিয়ে ‌যাচ্ছে পাকিস্তান। কাশ্মীরের অস্থিরতাতেও মদত দিচ্ছে তারা। সেই পাকিস্তানের সঙ্গে খেলাতেই জওয়ানদের মৃত্যুর প্রতিবাদে কালো আর্ম ব্যান্ড পরে নামেন সর্দাররা। (আরও পড়ুন- কবে অবসর নেবেন বিরাট কোহলি, ফাঁস করলেন ডেভিলিয়ার্স)

এবারই প্রথম নয়, এর আগেও এমনটা করেছেন সর্দাররা। ২০১৬ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়েছিল ভারত। সেই দলের অধিনায়ক  পিআর শ্রীজেস ট্রফি জওয়ানদের উৎসর্গ করেছিলেন। এদিন হকির দায়িত্বপ্রাপ্ত অধিনায়ক হরমনপ্রীত সিং জানিয়েছেন,”আমরা আজ শুধু নিজের দেশকে গর্বিত করতে চাইনি, গোটা দুনিয়াকে খেলার মাধ্যমে বার্তা দিতে চেয়েছিলাম”। হকি ইন্ডিয়ার সাধারণ সচিব মহম্মদ মুশতাক আহমেদের কথায়,”দেশের সেনাবাহিনীকে আমাদের নিরাপত্তা দেন। তাঁরা দেশের জন্য চরম আত্মত্যাগ করেন। ভারতীয় হকি দল চিরকাল তাঁদের পাশে দাঁড়ায়। সকলেরই সিদ্ধান্ত ছিল, উপত্যকায় ‌যেভাবে সেনাদের মারা হচ্ছে, তার প্রতিবাদ করা হবে।” (আরও পড়ুন- মেসি, রোনাল্ডোকে ছাপিয়ে গেলেন ভারতের সুনীল ছেত্রী)