হায়দরাবাদ, ২০ মে : আইপিএলে আজ মহারণ। হায়দরাবাদে আইপিএল ১০-এর ফাইনালে লড়াইয়ের ময়দানে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও রাইজিং পুণে সুপার জায়েন্ট।


আইপিএলে এবার একপ্রকার অপ্রতিরোধ্যই মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। কোয়ালিফায়ার ২-এ তারা নাইটদের একেবারে দুরমুশ করে দিয়েছে। ফলে মানসিকভাবে বেশ তেজী ভাবই রয়েছে মুম্বই শিবিরে। কিন্তু রোহিত শর্মার টিমকে নিঃসন্দেহে ভোগাচ্ছে রাইজিং পুণে সুপারজায়েন্ট। কারণ এই আইপিএলে তারা তিনবার হেরেছে পুণের কাছে।(আরও পড়ুন : মুম্বইয়ের হামলায় ধরাশায়ী নাইটরা, আইপিএলে ফাইনালের স্বপ্ন চুরমার কেকেআরের)


দুবারের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন মুম্বূই এনিয়ে চারবার আইপিএলের ফাইনালে। অনেকেই মু্ম্বইকে ফেবারিট ধরছেন কারণ তাদের দলের রোহিত শর্মা, কিরেন পোলার্ড, আম্বাতি রায়াডু ‌যথেষ্ট ভালো ফর্মে রয়েছেন। নীতিশ রানে ভালো খেলছিলেন। কিন্তু রায়াডু ফেরার পর তিনও ভালো খেলছেন। রোহিত শর্মা, কিরেন পোলার্ডদের পাশাপাশি রয়েছেন হার্দিক পান্ডিয়া ও করুনাল পান্ডিয়া। এরা ‌যে়কোনও সময়ে দলের ব্যাটিং ধস সামাল দিয়ে দিতে পারেন।


গত ম্যাচে কর্ণ শর্মা একাই নাইটদের ব্যাটিং লাইনআপে ধস নামিয়ে দিয়েছিলেন। অন্যদিকে, ‌যশপ্রীত বুমরাহ ও মালিঙ্গাও ভালো বল করেছিলেন। পাশাপাশি ভালো বল করছেন মিচেল জনসনও। এদের দুজন অন্তত ক্লিক করলে চাপে পড়ে ‌যাবে পুণে। নাইটদের সঙ্গে মুম্বইয়ে জোস বাটলারের অভাব টের পেতে দেননি মুম্বইয়ের তরুণ ব্রিগেড। বরং সেই জায়গায় ভালো খেলছেন লেন্ডল সিমনস।(আরও পড়ুন : মুম্বইয়ের বিস্ফোরক বোলিংয়ে একশো পেরোতেই শেষ নাইট রাইডার্স)

অন্যদিকে, রাইজিং পুণেতে বেন স্টোকস ও ইমরান তাহিরের মতো প্লেয়ার না থাকলেও তাদের অভাব খুব একটা চোখে পড়েনি। আইপিএল ‌যত এগিয়েছে ততই ক্রমশ ফর্মে ফিরেছেন ধোনি। রয়েছেন খোদ স্টিভ স্মিথ। এছাড়া রাহুল ত্রিপাঠি, অজিঙ্ক রাহানেকে নিয়ে বাজি ধরতে পারে পুণে। একইসঙ্গে একাধিক ম্যাচে মূল্যবান কিছু রান তুলে দিয়ে দলকে আশ্বস্ত করেছেন মনোজ তিওয়ারি। ফলে সহজে মুম্বইকে ছেড়ে দেবে না পুণে। ফলে রবিবার হায়দরাবাদে মারাঠা ডার্বিতে ভয়ঙ্কর লড়াইয় হবে বলে মনে করা হচ্ছে।