কলকাতা, ২ ডিসেম্বর : রাজ্য থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে হবে l সেনা প্রত্যাহার করা না হলে, ধরনা চলবে l রাজভবনের সামনে বিক্ষোভে সামিল হয়ে, শুক্রবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে এভাবেই ক্ষোভ উগরে দিল তৃণমূল কংগ্রেস l (আরও দেখুন : টাকা তোলার অভিযোগ ভিত্তিহীন, মমতাকে চ্যালেঞ্জ সেনার)

 


রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে সেনা বাহিনী প্রত্যাহার করা হোক বলে আজ রাজভবনের সামনে ধরনা কর্মসূচি শুরু করেন তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়করা l পাশপাশি, তৃণমূল কংগ্রেস মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এক প্রতিনিধি দল রাজভবনে যান, স্মারকলিপি জমা দেওয়ার জন্য l আর তখনই রাজভবনের বাইরে বিক্ষোভ শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়করা l সুজিত বসু, শশী পাঁজা, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, বেচারাম মান্না সহ তৃণমূল কংগ্রেসের সমস্ত মন্ত্রী, বিধায়করা ওই ধরনা কর্মসূচিতে হাজির হন l (আরও দেখুন : প্রধানমন্ত্রী মোদীকে এ কী বললেন রাহুল ?)

তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভয় পাচ্ছেন l তাঁর পায়ের তলা থেকে সরে যাচ্ছে মাটি l সারা দেশ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করছে বলেই, কেন্দ্রীয় সরকার এইসব কাজ শুরু করেছে বলে অভিযোগ l

 

এদিকে, কলকাতা পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে, নবান্নের সামনে সেনা মহড়ায় আপত্তি জানিয়েছিল তারা l তা সত্ত্বেও সেনা মহড়া শুরু করা হয়েছে l কলকাতা পুলিশের আধিকারিক সুপ্রতিম সরকার বলেন, তাঁদের সঙ্গে কথা বলে, সেনা যে কোনও জায়গায় তাদের রুটিন মাফিক ওই কাজ করতে পারত l (আরও দেখুন : রাজ্যের অভিযোগ সত্যি নয়, জানাল সেনা)

যদিও এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার স্পষ্ট জানিয়েছে, অযথা সেনাকে রাজনীতির মধ্যে টেনে আনা হচ্ছে l রাজনৈতিক সুবিধা পাওয়ার জন্যই পশ্চিমবঙ্গ সরকার ওই কাজ করছে বলেও সুর চড়ানো হয় l