কলকাতা, ১৭ জুলাই:  দার্জিলিংয়ে অশান্তির পেছনে আসলে কারা তা রাজনাথ সিংকে চিঠি লিখে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, এনিয়ে নাকি তিনি একাধিকবার ফোনও করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীকে।

(আরও পড়ুন : বিধানসভার মধ্যেই দিলীপ ঘোষকে আঙুল উঁচিয়ে শাসানি তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পালের, দেখুন ভিডিও)

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে চলা দার্জিলিংয়ের অশান্তির পেছনে চিনের ভূমিকা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রসঙ্গত কাশ্মীরে গোলমালের পেছনেও চিনের হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি।

গত সপ্তাহেই রাজনাথকে একটি চিঠি লেখেন মমতা। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন অনু‌যায়ী সেখানে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, ভূ-রাজনৈতিক কারণে পশ্চিমবঙ্গের উত্তরপূর্বাঞ্চল খুবই গুরুক্বপূর্ণ। চিকেন নেক নামে পরিচিত রাজ্যের ওই অংশটি উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলির সঙ্গে দেশের ‌যোগা‌যোগ রক্ষা করে। ওই অংশের ওপরেই নজর রয়েছে প্রতিবেশী দেশটির।

(আরও পড়ুন : চিনের মুখোমুখি হওয়ার সাহস ভারতের নেই, ডোকলাম বিতর্কের মধ্যেই মন্তব্য ফারুকের)

সম্প্রতি রাজ্যে গোলমালের পেছনে চিনের ভূমিকা নিয়ে প্রথম বিবৃতি দেন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। চিনের প্রভাব সম্পর্কে আগেই রাজ্যবাসীকে সাবধান করেছিলেন মমতা। চিনের নাম না করে সম্প্রতি পার্থ বলেন, পাহাড়ে অশান্তির পেছনে একটি প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মদত রয়েছে। এর উপ‌যুক্ত প্রমাণ আমাদের হাতে আছে। সংবাদ মাধ্যমের খবর, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করেন, গত কয়েক বছরে নেপাল ও ভুটানে প্রভাব বাড়িয়েছে চিন। তার প্রভাব দার্জিলিংয়েও পড়েছে। রাজনাথকে লেখা চিঠিতে এসবই জানিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী।