ঢাকা, ৬ জানুয়ারি : ঢাকার মহম্মদপুরে পুলিশের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে খতম ঢাকা হামলার মাস্টারমাইন্ড নুরুল ইসলাম মারজান। নব্য জমাত-এর এই জঙ্গিকে বহুদিন ধরেই খুঁজছিল বাংলাদেশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সিজশনাল ক্রাইম ইউনিট।(আরও পড়ুন : আইএস-এর নতুন ভিডিওয় দেখা মিলল ঢাকা হামলায় নিহত ৫ জঙ্গির )

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার খুব ভোরে মহম্মদপুরের একটি বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। পুলিশের অস্তিত্ব টের পেয়েই মারজান গুলি চালাতে শুরু করে। পালটা গুলিতে মারা ‌যায় মারজান। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

প্রাক্তন ইসলামি ছাত্র শিবিরের নেতা মারজান নব্য জেএমবি-তে ‌যোগ দিয়েছিল সম্প্রতি। বহুদিন ধরেই সে গোবিন্দগঙ্গে লুকিয়ে ছিল বলে মনে করছে পুলিশ।(আরও পড়ুন : পাক জঙ্গিদের মদতে ঢাকা হামলায় ব্যবহৃত রাইফেল তৈরি হয়েছিল এদেশেই)

গতবছর ১ জুলাই ঢাকার হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় জঙ্গিরা। ওই হামলায় ১৭ জন বিদেশি সহ ২২ জনের মৃত্যু হয়। পুলিশের দাবি এই মারজানের মাধ্যমে হোলি আর্টিজান বেকারিতে নিহত লোকজনের ছবি বাইরে পাঠানো হয়েছিল।