নয়া দিল্লি, ১ ডিসেম্বর : জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঠেকাতে পাকিস্তান সীমান্তে চালানো হবে আরও কড়া নজরদারি৷ আর সেই কারণে উন্নত মানের মাল্টি লেয়ার্ড কাঁটাতারের বেড়া লাগানো হবে সীমান্ত এলাকায়৷ বুধবার এমনই জানানো হয়েছে বিএসএফের তরফে৷ তবে, শুধু পাকিস্তান সীমান্ত নয়, বাংলাদেশ সীমান্তেও এবার ওই উন্নত মানের কাঁটাতারের বেড়া লাগানো হবে বলে খবর৷

বিএসএফের ডিজি কে কে শর্মা জানিয়েছেন,  ২০১৭ সালের মধ্যে পাকিস্তান ও বাংলাদেশ সীমান্তে ওই মাল্টি লেয়ার্ড কাঁটাতারের বেড়া লাগানোর কাজ সম্পূর্ণ করা হবে৷২০টি বড় সংস্থাকে ওই কাজের দায়িত্ব হয়েছে দেওয়া৷ (আরও দেখুন : জঙ্গিদের গতিবিধি আড়াল করার চেষ্টা করছিল পাকিস্তান ?)

আগামী বছরের দ্বিতীয়ার্ধের মধ্যেই ওই কাজ শেষ করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে৷ সীমান্ত সুরক্ষায় যাতে আরও উন্নত ব্যবস্থা করা যায়, তার জন্যই ওই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএসএফের ওই আধিকারিক৷

শুধু তাই নয়, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশ সীমান্তে যদি মাল্টি লেয়ার্ড কাঁটাতারের বেড়া লাগানো যায়, তাহলে ওই সমস্ত এলাকায় পাহারা দেওয়ারও আর প্রয়োজন পড়বে না বলেই আশা প্রকাশ করেছে বিএসএফ৷

জানা যাচ্ছে, জম্মু, পঞ্জাব এবং গুজরাট সীমান্তে ইতিমধ্যেই ওই মাল্টি লেয়ার্ড কাঁটাতারের বেড়া লগানোর কাজ শুরু হয়েছে৷ অসমের ধুবরি সীমান্তে আর কিছুদিনের মধ্যেই উন্নত মানের ওই কাঁটা তারের বেড়া লাগানোর কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

এদিকে, নাগরোটার সেনা ছাউনিতে যখন জঙ্গিদের সঙ্গে জওয়ানদের গুলির লড়াই চলছিল, সেই সময় সাম্বা সীমান্তের ৪০ মিটার দূরে একটি সুড়ঙ্গ দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছিল পাকিস্তানি জঙ্গিরা৷

সেনা বাহিনীর কাছে আগে থকে খবর থাকায় অনুপ্রিবেশের আগেই ৩ জঙ্গিকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেওয়া হয়৷ পাকিস্তান সীমান্তে সীমান্তে মাল্টি লেয়ার্ড কাঁটাতারের বেড়া লাগানো হলে, পড়শি দেশ থেকে জঙ্গিদের অবাধ গরিবিধি ঠেকানো যাবে বলে আশা করা হচ্ছে৷